ওয়াইফাইয়ের জন্য কোন কোম্পানির রাউটার ও অনু ভালো। ভালো রাউটার চিনার উপায়

বর্তমান সময়ে ভালো রাউটার ও অনু নির্বাচন করা অনেক কষ্টসাধ্য। ভালো রাউটার ও অনু ছাড়া ভালো আপনি কখনোই ভালো ইন্টারনেট বা ওয়াইফাই ব্যবহার করতে পারবেন না। সুররাং ওয়াইফাইয়ের জন্য কোন কোম্পানির রাউটার ও অনু ভালো বিস্তারিত জানতে আমাদের পোস্টটি শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত পড়ুন।
আধুনিক যুগে ইন্টারনেট ব্যবহার এর পরিমাণ অনেক বৃদ্ধি পেয়েছে। ইন্টারনেট ব্যবহার করার জন্য আমাদের প্রয়োজন ইন্টারনেট। ভালো মানের ইন্টারনেট পেতে হলে আপনাকে অবশ্যই ভালো রাউটার ও অনু নির্বাচন করতে হবে। আজকের পোস্টে আলোচনার বিষয় হল ওয়াইফাইয়ের জন্য কোন কোম্পানির রাউটার ও অনু ভালো কাজ করে।

ভূমিকা

তথ্য প্রযুক্তির এই যুগে ইন্টারনেট ছাড়া এক মুহূর্ত চলা অসম্ভব। যেকোনো কাজ করার জন্য আপনাকে প্রথমে এমবি অথবা নেট কানেকশন দিতে হবে। সিম কার্ডে এমবি কিনা বর্তমানে অনেক ব্যয়বহুল এবং লিমিটেড কিন্তু আমরা অনলিমিটেড ইন্টারনেট ব্যবহার করতে চাই যার কারণে ওয়াইফাই আমাদের জন্য সবচাই সাশ্রয়ী। ভালো মানের ওয়াইফাই পেতে হলে আপনাকে প্রথমেই ভালো মানের রাউটার ও অনু নির্বাচন করতে হবে। কেননা ওয়াইফাই স্পীড নির্ভর করে সিগন্যালের ওপর। আর ভালো মানের রাউটার ও অনুর সিগন্যাল ভালো থাকে।

ভালো করে ইন্টারনেট ব্রাউজিং করতে হলে অধিক ইন্টারনেট স্পীডের প্রয়োজন আর ভালো রাউটার আপনার ইন্টারনেট স্পীডকে বাড়িয়ে তুলতে সাহায্য করে। আজকের পোস্টে আমরা এই রকম ভালো মানের কয়েকটি রাউটার ও অনু নিয়ে আলোচনা করবো। ওয়াইফাইয়ের জন্য কোন কোম্পানির রাউটার ও অনু ভালো বিস্তারিত জানতে সম্পূর্ণ পোস্টটি পড়ুন।

বর্তমান সময়ে সবচেয়ে ভালো রাউটার কোনটি ?

Routar হলো ইন্টারনেট নেটওয়ার্ক এর এমন একটি যন্ত্র যা আমাদেরকে খুব সহজেই ইন্টারনেটের সাথে সংযুক্ত রাখতে সাহায্য করে। রাউটার হচ্ছে তারবিহীন একটি ইন্টারনেট সেবা ব্যবস্থা। এটির প্রথম সুবিধা হচ্ছে কোন তার লাগেনা, অনেক দূর পর্যন্ত রেঞ্জ থাকে, একসঙ্গে অনেকজন ইন্টারনেট সেবা গ্রহণ করতে পারে। রাউটার সাধারণত হার্ডওয়্যার ও সফটওয়্যার এর সমন্বয়ে তৈরি করা হয়। এখন প্রশ্ন হচ্ছে, বর্তমান সময়ে সবচেয়ে ভালো রাউটার কোনটি ? বর্তমান সময়ে বাজারে অনেক কোম্পানির রাউটার আপনি পাবেন কিন্তু আপনার জন্য পারফেক্ট রাউটার কোনটি কীভাবে বুজবেন। এখন আমরা সেরা কিছু রাউটারের সাথে পরিচিত হব।

  • Tenda
  • Tenda AC21
  • TP-Link TL-WR820N
  • TP-Link Archer C54 AC1200
  • TP-Link Archer C64 AC1200
  • TP-Link Archer C20 AC750
  • TP-Link Archer C60 AC1350
  • TP-Link Deco E4 (Single pack)
  • Asus RT-AX56U AX1800
  • Asus RT-AX58U AX3000
  • Asus RT-AC59U V2 AC1500
  • Asus RT-AX53U AX1800
  • ASUS RT-AX55 AX1800
  • Mercusys MW305R
  • Mercusys AC10 AC1200
  • Mercusys AC12G AC1200
  • Xiaomi Mi 4A (Regular Edition)
  • Xiaomi Mi 4A (Gigabit Edition)
  • Xiaomi MI 4C R4CM 300
  • Xiaomi Mi AIoT AX3600
  • Netgear AC1200 Dual Band Gaming Router
উপরে অনেকগুলো ভালো ভালো রাউটারের মডেল দিয়ে দিছি। আপনারা ইন্টারনেট থেকে দেখে ভালো করে যাচাই করে আপনার বাজেটের মধ্যে ভালো রাউটার নির্বাচন করবেন। আমাদের আজকের আলোচনার বিষয় হচ্ছে ওয়াইফাইয়ের জন্য কোন কোম্পানির রাউটার ও অনু ভালো হবে।

ভালো রাউটার চেনার উপায়

আমরা ইতিমধ্যে অনেক কোম্পানি এবং অনেক বাজেটের রাউটারের নাম জেনেছি। কিন্তু অপরের সবগুলো রাউটার কি ভালো ? আবার ভালো রাউটার চেনার উপায় কি ? এখন আমরা জানবো একটি ভালো রাউটারের কি কি গুণ থাকবে।

  • কভারেজ এরিয়া
  • রাউটার অ্যান্টেনা
  • নেটওয়ার্ক রেঞ্জ
  • ডিভাইস সংখ্যা
  • রুম সংখ্যা

ভালো রাউটারের বৈশিষ্ট্য 

নিচে ভালো রাউটার চিনার বিশেষ কিছু বৈশিষ্ট্য নিচে দেওয়া হলঃ 
কভারেজ এরিয়া
একটি ভালো রাউটার এর প্রথম এবং প্রধান গুণ হচ্ছে কভারেজ এরিয়া। কভারেজ এরিয়া বলতে বোঝায় রাউটারের সিগন্যাল কতদূর পর্যন্ত বিদ্যমান অর্থাৎ কত দূরত্ব পর্যন্ত আপনি ভালোভাবে ইন্টারনেট ইউস করতে পারছেন। একটি রাউটারের কভারেজ এরিয়া যত বেশি হবে রাউটারের ফ্রিকোয়েন্সি তত বেশি হবে এবং রাউটার তত ভালোভাবে কাজ করবে।

আমাদের দেশে সাধারণত ২.৪ গিগাহার্জ ফ্রিকোয়েন্সির বেশি ব্যবহৃত হয়ে থাকে। উক্ত রাউটার গুলো ৩২ টি ডিভাইস পর্যন্ত কানেক্ট করতে পারে মানে একসাথে ৩২ টি ডিভাইসকে একসাথে ইন্টারনেট সেবা দিতে পারে। কিন্তু বর্তমানে ডুয়েল ব্যান্ড রাউটার বের হয়েছে যার ফ্রিকোয়েন্সি অনেক বেশি আর এটি বর্তমানে সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত হচ্ছে। ডুয়েল ব্যান্ড রাউটার সিঙ্গেল এর চেয়ে অনেক শক্তিশালী হয়। আপনি ৩ থেকে ৪টি রুমে ব্যবহার করতে চান তাহলে আপনার জন্য ডুয়েল ব্যান্ড(Dual Band) রাউটারটি হবে সেরা। তাই আমাদের উচিত রাউটার কিনার পূর্বে রাউটারটির কভারেজ এরিয়া সম্পর্কে সঠিক ধারণা নিয়া।

রাউটার অ্যান্টেনা
রাউটার অ্যান্টেনা হচ্ছে ভালো রাউটার এর অন্যতম একটি গুণ। আপনার রাউটারের এন্টেনা যত বেশি হবে তত বেশি রাউটার ভালো পারফরম্যান্স দিবে এর সাথে সাথে, ভালো কভারেজ ও রেঞ্জ দিবে। বর্তমান সময়ে অধিক অ্যান্টেনা যুক্ত রাউটার বের হয়েছে যেগুলো দ্রুত গতি সম্পন্ন ইন্টারনেট সেবা প্রদান করতে সক্ষম এবং কভারেজ এরিয়া বৃদ্ধি করে। যেসব রাউটারের অ্যান্টেনা যত বেশি হবে তার রেঞ্জ ততবেশি হবে এবং ততবেশি ভালো পারফরমেন্স দিবে। তাই আমাদের উচিত অধিক অ্যান্টেনাযুক্ত রাউটার ক্রয় করা।

নেটওয়ার্ক রেঞ্জ
রেঞ্জ বলতে আপনার ওয়াইফাই সংযোগস্থান থেকে কতদূর পর্যন্ত আপনি ভালোভাবে ইন্টারনেট ব্যবহার করতে পারছেন। আপনি কতদূর পর্যন্ত ইন্টারনেট সিগন্যাল পৌছাতে চান সেটাই হচ্ছে ওয়াইফাই এর রেঞ্জ। একটি রাউটারের রেঞ্জ যত বেশি হবে আপনি ততদূর পর্যন্ত ইন্টারনেট সেবা পাবেন। মনে করুন আপনার বাসাই সংযোগ দেওয়া হয়েছে এবং আপনি চাইলেই বাইরে রাস্তায় গিয়ে ইন্টারনেট ব্যবহার করতে পারবেন। এটা সম্ভব হবে যদি আপনার রাউটারের নেটওয়ার্ক রেঞ্জ বেশি হয়।

ডিভাইস সংখ্যা
একটি রাউটার এর আওতায় কয়টি ডিভাইস চলবে সেটা রাউটার এর ডিভাইস সংখ্যা এর ওপর নির্ভর করে। একটি রাউটার সাধারণত একটি পরিবারের সকল সদস্যই ব্যবহার করবে। কিন্তু রাউটারটি বেশি ডিভাইস এর চাপ সহ্য করতে পারবে কিনা সেটি বিবেচনায় রাখতে হবে। একটি ভালো রাউটার এর এই গুণটি থাকে। একসাথে অনেকগুলো ডিভাইস ব্যবহার করা যায়। কমদামি সাধারণ রাউটার গুলো এতো ডিভাইস এর চাপ সহ্য করতে পারেনা যার কারণে মাঝে মাঝে ইন্টারনেট ছেড়ে দেয়। সাধারণত রাউটারের স্পিড ১৫০ এমবিপিএস থেকে ৩০০ এমবিপিএস পর্যন্ত হয়ে থাকে। তবে বর্তমানে আরও ভালো স্পীড যুক্ত রাউটার বের হচ্ছে।

রুম সংখ্যা/বাসা সংখ্যা
একটি সংযোগ কয়টি বাসায় অথবা একটি বাসার কয়টি রুমে চলবে সেটা রাউটার এর ক্ষমতার ওপর নির্ভর করে। রাউটার যত বেশি শক্তিশালী হবে তত ভালো জানালা দরজা ভেদ করে সিগন্যাল অন্য রুম বা অন্য বাসায় নিয়ে যাবে। তাই রাউটার কেনার পূর্বে আমাদের উক্ত বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে।

এতক্ষণ আমরা জানলাম যে একটি রাউটারের কি কি গুণ থাকলে আমরা তাকে ভালো রাউটার বলবো। আমরা রাউটার ক্রয় করার পূর্বে অবশ্যই উক্ত বিষয়গুলো বিবেচনা করে ক্রয় করবো। আর ওয়াইফাইয়ের জন্য কোন কোম্পানির রাউটার ও অনু ভালো সে সম্পর্কে আগে জানবো।

ওয়াইফাই রাউটারের দাম কত ?

বাজারে আপনি বিভিন্ন দামের রাউটার পেয়ে যাবেন। আপনার বাজেট অনুযায়ী আপনাকে রাউটার ক্রয় করতে হবে। তবে একটি রাউটার ক্রয় করার পূর্বে অবশ্যই উপরিক্ত কয়েকটি বিষয় বিবেচনা করে ক্রয় করবেন। ভালো রাউটার চেনার কিছু উপায় আমারা ইতিমধ্যে জেনে গেছি। এখন আমরা চাইলেই আমাদের জন্য একটি ভালো রাউটার নির্বাচন করতে পারবো। একটি রাউটার বিভিন্ন দামের হয়ে থাকে।
একটি রাউটার সাধারনত ১২০০ থেকে ৩০০০ টাকা পর্যন্ত হয়ে থাকে। অনেক কম দামি রাউটার বলতে TENDA N301 300 Mbps Broadband N Router যেটার বাজার মূল্য ১০৯৯ টাকা ( প্রায় )।

আবার অনেক দামি রাউটার D-Link DIR-890L Wireless AC3200 Ultra Tri-Band Gigabit Router যেটার দাম ১৪৫০০ টাকা ( প্রায় )। সুতরাং কম দামি এবং বেশি দামি উভয় রাউটার রয়েছে। আমাদের উচিত আমাদের বাজেট অনুযায়ী ভালো রাউটার নির্বাচন করা। আমাদের আজকের আলোচনার বিষয় হচ্ছে ওয়াইফাইয়ের জন্য কোন কোম্পানির রাউটার ও অনু ভালো হবে।

ওয়াইফাই রাউটারের অনুর দাম কত ?

অনু হচ্ছে অপটিক্যাল নেটওয়ার্ক ইউনিট এর সংক্ষিপ্ত রুপ। অনু হচ্ছে ফাইবার টু হোম ইকুইপমেন্ট বা প্রোডাক্ট।ওয়াইফাই স্পীড বাড়িয়ে নিতে অনু খুবই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। একটি অনুর সিগন্যাল ট্রান্সফারের স্পীড,পোর্ট সংখ্যা, এবং ধরনের ভিত্তিতে মূল্য ৭০০ থেকে ১২০০ টাকা পর্যন্ত হতে পারে।

কোন অনু ভালো ?

আপনার রাউটার এর ওপর নির্ভর করে আপনার জন্য কোন অণুটি দরকারি। তবে কিছু কিছু অনু আছে যেগুলো অনেক ভালো কাজ করে। যেমনঃ
  • TP-Link XZ000-G7 1-Port Gigabit XPON Terminal
  • C-DATA XPON ONU FD511G-X-F361 1GE
  • Huawei HG8245H (GPON, 2.5 Gbps)

শেষকথা

আজকের পোস্ট থেকে আমরা ওয়াইফাইয়ের জন্য কোন কোম্পানির রাউটার ও অনু ভালো সে সম্পর্কে জানলাম। আমাদের ওয়াইফাই সংযোগ দিয়ার পূর্বে রাউটার ও অনু সম্পর্কে সঠিক ধারণা নিতে হবে।

পোস্টটি ভালো লেগে থাকলে আমাদের পেজকে ফলো করুন এবং শেয়ার করে সবাইকে দেখার সুযোগ করে দিন।

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

অর্ডিনারি আইটির নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url