ফেসবুক রিলস থেকে ইনকাম করুন এক পলকেই। ফেসবুক থেকে টাকা ইনকাম

বর্তমান সময়ে অনলাইন থেকে ঘরে বসেই বাড়তি টাকা ইনকাম করা যায়। শুধুমাত্র আপনাকে ইনকামের উপায় সম্পর্কে জানতে হবে। আমরা ফেসবুকে বিনোদনের মাধ্যম হিসেবে ব্যবহার করি কিন্তু অনেকে ফেসবুক থেকে প্রতি মাসে লাখ লাখ টাকা ইনকাম করছে। এমনকি ফেসবুক রিলস থেকে টাকা ইনকাম করা যায়। আজকের পোস্টে আমরা ফেসবুক রিলস থেকে ইনকাম করুন এক পলকেই সে সম্পর্কে জানবো।
আপনি যদি ফেসবুকে শুধুমাত্র বিনোদনের মাধ্যম হিসেবে ব্যবহার করে থাকেন তাহলে আজকের পোস্টটি আপনার জন্য কেননা, আমরা আজকের আর্টিকেল থেকে জানবো যে, ফেসবুক থেকে এবং রিলস থেকে কীভাবে, কত টাকা আয় করা যায় সে সম্পর্কে বিস্তারিত জানবো।

ভূমিকা

যুগের সাথে তাল মিলিয়ে মানুষ এখন অনেক উন্নত হয়েছে। এখনকার দিনে এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া যাবে না যার কাছে একটি কম্পিউটার, স্মার্ট ফোন এবং ইন্টারনেট সংযোগ নেই। আর তার চেয়ে বড় বিষয় হচ্ছে একটি ফেসবুক অ্যাকাউন্ট নেই এইরকম মানুষ ও খুঁজে পাওয়া যাবে না। আমরা সবাই ফেসবুকে আমাদের বিনোদনের মাধ্যম হিসেবে ব্যবহার করে আমাদের সময় ব্যয় করি কিন্তু অনেকেই আছে যারা বিনোদনের পাশাপাশি ফেসবুক থেকে প্রতি মাসে লাখ লাখ টাকা আয় করে। 

ফেসবুক ভিডিও তৈরি করে সবাই অনেক টাকা ইনকাম করে। ছোট ছোট ভিডিওগুলোকে রিলস বলা হয়। উক্ত রিলস ফেসবুকে আপলোড দিলে লক্ষ লক্ষ ভিউ হয় এবং লাইক শেয়ার কমেন্ট পরে এইভাবে টাকা ইনকাম হয়। আজকে আমরা জানবো ফেসবুক রিলস থেকে ইনকাম করুন এক পলকেই। ফেসবুক থেকে টাকা ইনকাম করার উপায় সম্পর্কে বিস্তারিত।

ফেসবুক রিলস থেকে ইনকাম করুন এক পলকেই

ফেসবুক রিলস হচ্ছে ফেসবুকের ছোট ছোট শর্ট ভিডিও। ফেসবুক রিলস চালু হয়েছে মূলত টিকটকের ব্যাপক জনপ্রিয়তা দেখে। ব্যস্ত মানুষের জন্য দীর্ঘ ভিডিও দেখা সম্ভব নয় সেসব বিষয় বিবেচনায় রেখে ফেসবুকও ইউটিউব কর্তৃপক্ষ ছোট ছোট শর্ট ভিডিও রিলস ভিডিও চালু করেছে। সাধারণত ফেসবুক আইডি অথবা পেজ মনিটাইজেশন চালু হলে ক্রিয়েটররা শর্টস ও রিলস থেকে টাকা ইনকাম করতে পারে। ফেসবুক রিলিস থেকেও যে টাকা ইনকাম করা যায় এটা আজও অনেকের অজানা। 

এখন আমরা জানব ফেসবুক রিলিস থেকে টাকা ইনকাম করতে হলে আপনাকে কি কি করা লাগবে সে বিষয়ে বিস্তারিত। আজকে পোস্টের আমাদের আলোচনার বিষয় হচ্ছে ফেসবুক রিলস থেকে ইনকাম করুন এক পলকে এবং ফেসবুক থেকে টাকা ইনকাম করার উপায়। উক্ত বিষয়ে বিস্তারিত জানতে সম্পূর্ণ পোস্টটি শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত পড়ুন।

রিলস থেকে টাকা ইনকাম করতে কি কি শর্ত প্রয়োজন ?

ফেসবুক ভিডিও ও রিলস ভিডিও দুটোই আলাদা জিনিস। কারণ ফেসবুক ভিডিও হয় অনেক দীর্ঘ ভিডিও অন্যদিকে রিলস ভিডচ সর্বোচ্চ ৯০ সেকেন্ডের হয়ে থাকে। ছোট রিলস বা শর্ট ভিডিও দেওয়ার পরে টাকা ইনকাম করতে হলে আপনার ফেসবুকে অবশ্যই মনিটাইজেশন করতে হবে। মনিটেশন করতে হলে আপনার পেজ অথবা আইডিকে প্রফেশনাল মুডে অন্তত ৫ হাজারের বেশি ফলোয়ার থাকতে হবে। 

৫হাজার ফলোয়ারের পাশাপাশি ৫টি ইউনিক ভিডিও যা অন্য কেউ আজ পর্যন্ত আপলোড করেনি, শেষ ২ মাস বা ৬০ দিনে ৬০ হাজার মিনিট ওয়াচটাইম। কিন্তু অন্যকোন ব্যক্তির চুরি করা ভিডিও নিয়ে অথবা ভিডিওর অংশ বিশেষ চুরি করে আপলোড করলে আপনি মনিটাইজেশন করতে পারবেন না। উপরোক্ত নিয়মগুলো এবং শর্তগুলো পূরণ হলে আপনি আপনার ফেসবুক পেজ মনিটাইজেশন করার জন্য ফেসবুক কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন করতে পারবেন। 

ফেসবুক কর্তৃপক্ষের একটি গ্রুপ পেজ ও পার্টনার পলিসি এবং কনটেন্ট মনিটাইজেশন পলিসি আপনার পেজ ভিউ করবে। আপনার পেজের নিয়মগুলো এবং সত্যগুলো সব ঠিকঠাক থাকলে মেটা বিজনেস স্যুট, আপনাকে মেইল অথবা প্রফেশনাল ড্যাশবোর্ড এর মাধ্যমে জানিয়ে দেবে। উক্ত আবেদনের পর আপনি যদি অনুমোদন পেয়ে যান তাহলে ফেসবুক থেকে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। 

এভাবে আপনি উপরোক্ত কাজগুলো এবং শর্তগুলো পালন করার মাধ্যমে ফেসবুক রিলিজ থেকে লক্ষ লক্ষ টাকা ইনকাম করতে পারেন এক্ষেত্রে আপনার ভিউ ও ফলোয়ারের উপর নির্ভর করবে আপনার ইনকাম। আজকের পোষ্টের আমাদের আলোচনার বিষয় ফেসবুক রিলস থেকে ইনকাম করুন এক পলকেই। ফেসবুক থেকে টাকা ইনকাম করার সহজ উপায়।

ফেসবুক রিলস মনিটাইজেশন

প্রিয় পাঠকবৃন্দ আমরা ইতিমধ্যে জেনে গেছি ফেসবুক থেকে কিভাবে টাকা ইনকাম করা যায়। ফেসবুক থেকে টাকা ইনকাম করা এবং মনিটাইজেশন করার শর্ত সমূহ আমরা ইতিমধ্যে জেনে গেছি। এখন আমরা জানবো মনিটাইজেশন কি? মনিটাইজেশন প্রক্রিয়া হলো এক প্রকার অনুমোদন প্রক্রিয়া। অর্থাৎ নির্দিষ্ট কিছু শর্তপূরণ করার মাধ্যমে ফেসবুক কর্তৃপক্ষের দৃষ্টিগোচর করা। ফেসবুক পেজ মনিটাইজেশন করার জন্য আপনাকে ভালো মানের ভিডিও বানাতে হবে এবং ভিডিওটি যেন একান্তই আপনার হয় অর্থাৎ ভিডিওটি ইউনিক বা অনন্য হতে হবে। 

দ্বিতীয়টি হচ্ছে আপনার পেজে অন্তত ৫টির বেশি ভিডিও থাকতে হবে। ফলোয়ারের দিক বিবেচনা করলে ১০ হাজার ফরোয়ার্ড থাকা প্রয়োজন। মনিটাইজেশন আবেদন করার আগ মুহূর্ত ২ মাসের মধ্যে ৬০০K মিনিট ওয়াচ টাইম কমপ্লিট করা থাকতে হবে তাহলে আপনার পেজটি মনিটাইজেশন করার জন্য আবেদনের উপযুক্ত হবে। শর্তগুলো পালন করা থাকলে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ অবশ্যই আপনার পেজটি মনিটাইজেশন করে দেবে এবং ইনকামের সুযোগ করে দেবে। আজকের আমরা ফেসবুকওয়েল্স থেকে ইনকাম করুন এক পলকেই এ বিষয়ে বিস্তারিত জেনেছি।

রিলস বুস্ট করতে পারছি না

অনেকে রিলস তৈরি করে কিন্তু সঠিকভাবে রিলস বুস্ট করতে পারেনা। আমরা সাধারণত অনেক জায়গায় রিলস দেখে থাকি যেমন ইনস্টাগ্রাম, youtube, facebook ইত্যাদি। instagram এর রিলস গুলো সাধারণত একটু দীর্ঘ হতে পারে অর্থাৎ উক্ত রিলসগুলো ৯০ সেকেন্ডের চাইতে বড় হয় কিন্তু আপনি যখন ফেসবুকে রিলস আপলোড করবেন তখন দীর্ঘ রিলসগুলো চাইলেও বুস্ট করতে পারবেন না। 

তাই ফেসবুকে একটি রেস্ট বুস্ট করতে হলে আপনাকে অবশ্যই রিলসগুলো বুস্ট করতে হবে। যদি রিলস দীর্ঘ হওয়ার জন্য আপনার রিয়লস বুস্ট না হয় তাহলে আপনার উচিত অবশ্যই এডিট করে রিলসটি কেটে ছোট করা। তাছাড়াও রিলস বুস্ট না হওয়ার আরো কিছু উল্লেখযোগ্য কারণ রয়েছে যেমনঃ

  • অন্যের রিলস কপিরাইট করা বা চুরি করা রিলস বুস্ট করা যাবে না।
  • কম রেজুলেশন এর ভিডিও বুস্ট করা যায় না।
  • কোন বিজ্ঞাপনকে রিলস হিসেবে আপলোড করে বুস্ট করা যাবে না।
  • যে রিলসগুলো প্রচার করার অনুমতি নেই এগুলো বুস্ট করা যায় না।
  • জিআইএফ এর রিলসগুলো বুস্ট করা যাবে না।
  • ট্যাপযোগ্য উপাদান ধারণকারী রিলস বুস্ট করা যায় না।
  • অধিক ফিল্টার ব্যবহারকারী রিলস বুস্ট করা যায় না।
উপরের বৈশিষ্টধারী রিলসগুলো সাধারণত সচরাচর বুস্ট করা যায়না। তাই আপনাকে ফেসবুকের রিলস বুস্ট সমস্যা থেকে বাঁচতে উপরিক্ত নিয়মগুলো মেনে রিলস বোস্ট করার জন্য আবেদন করতে হবে। আজকের পোস্ট থেকে আমরা ফেসবুক রিলস থেকে ইনকাম করুন এক পলকেই এ বিষয়ে জানলাম।

ফেসবুকে রিলস ভিউ বাড়ানোর উপায়

যদি ফেসবুক রিলস আপলোড করার পরেও ভিউ পাচ্ছেন না তাহলে কেমন লাগবে। ফেসবুকের রিলসের ভিউ বাড়ানোর কিছু গুরুত্বপূর্ণ সিক্রেট টিপস রয়েছে চলুন সেগুলো জেনে নেওয়া যাক।

  • জনপ্রিয় গান এবং মিউজিক নির্বাচন করুন যেটা মানুষ বেশি পছন্দ করে। অর্থাৎ মানুষকে আকৃষ্ট করে এই ধরনের গান অডিও ট্র্যাক ব্যবহার করে রিলস তৈরি করুন এতে আপনের রিলসের ভিউ অনেক বেড়ে যাবে।
  • রিলস তৈরি করার পর আপলোড করার সময় রিলস রিলেটেড হ্যাশটেক ব্যবহার করুন এতে রিলসের ভিউ বেশি হবে।
  • ইউনিক বা অনন্য রিলস তৈরি করুন। যেটা আপনি ছাড়া অন্য কেউ পূর্বে আপলোড করেনি তাহলে অনেক বেশি ভিউ পাবেন।
  • রুটিন করে নিয়মিত রিলস শেয়ার করুন এতে ফলোয়াররা নিয়মিত আসবে এবং রিলস দেখবে এতে ভিউ বাড়বে।
  • শিক্ষানীয় এবং পরিবেশবান্ধব রিলস শেয়ার করতে পারেন এতে ভিউ বেশি হবে।
  • সাম্প্রতিক বিষয় অর্থাৎ ট্রেন্ডিংয়ে আছে এমন কিছু নিয়ে রিলস তৈরি করুন এতে ভিউ প্রচুর বাড়বে।
  • সুন্দর আকর্ষণীয় ক্যাপশন দিন এতে দর্শক আকৃষ্ট হয়ে রিলস দেখবে এবং ভিউ বেড়ে যাবে।
প্রিয় পাঠকবৃন্দ আমরা কিভাবে রিলসের ভিউ বাড়াবো সেই সম্পর্কে সিক্রেট কিছু তথ্য সম্পর্কে জেনে গেলাম।

আপনার রিলস কে দেখছে কিভাবে দেখবেন ?

অনেকেই মনে করে আমার রিলসের অনেক ভিউ হচ্ছে কিন্তু কে কে দেখছে আমার রিলস সেটা কেমন করে দেখব? আদৌ কি দেখা সম্ভব? উত্তর হচ্ছে না। ফেসবুকে রিলস থেকে শুধুমাত্র আপনি কয়জন রিয়েক্ট দিয়েছে এবং কে কে রেট দিয়েছে এবং কে কে কমেন্ট করেছে এ বিষয়গুলো দেখতে পারবেন। কয়জন বা কে কে ভিউ করেছে এটা দেখা যায় না। তবে আপনি দেখতে পারবেন আপনার রিলস কতবার ভিউ হয়েছে। 

এক্ষেত্রে আপনাকে আপনার রিলসের ডানদিকে হার্ট আইকনটি খুঁজতে হবে। এখানে আলতো করে চাপ দিলে আপনি দেখতে পাবেন রিলসটি কতবার দেখা হয়েছে এবং কতগুলো লাইক ও কমেন্ট পড়েছে। আজকের পোস্টের মূল আলোচ্য বিষয় হচ্ছে ফেসবুক রিলস থেকে ইনকাম করুন এক পলকেই।

রিলসে বিজ্ঞাপন দিতে কত টাকা দেয় ?

অনেকে মনে করে রিলসে টাকা কিসের উপর ভিত্তি করে আসে। আসলে রিলসে আপনার ভিউয়ের উপর ভিত্তি করে টাকা প্রদান করা হয়। তবে এটার সঠিক মান এখনো পর্যন্ত জানা সম্ভব তবে অনুমানের ভিত্তিতে আপনাকে এক একটি রিলসের ভিউয়ের জন্য সেন্টের ভগ্নাংশ যুক্ত হয়। উক্ত সেন্ট একত্রিত হয়ে ডলারে রূপান্তরিত হয়। অর্থাৎ আপনি যদি রেল থেকে ১৫৪ ডলার ইনকাম করেন এবং আপনার রিলস এর ভিউ যদি ৩৭,৫১৩ হয় তাহলে আনুমানিক প্রতি ১০০০ ভিউয়ে আপনি ৪ ডলারের বেশি অর্থ ইনকাম করেছেন। 

এভাবেই আনুমানিক হারে রিলিসের টাকা হিসাব করা হয়। তবে প্রকৃতপক্ষে কত টাকা প্রদান করা হয় সেটি ফেসবুক কর্তৃপক্ষই বলতে পারবে। আমরা আজ জানলাম ফেসবুক রিলস থেকে ইনকাম করুন এক পলকেই এই বিষয়ে বিস্তারিত।

লেখকের মন্তব্য

সবমিলিয়ে বলা যায়, আমাদের বিনোদনের পাশাপাশি ফেসবুক থেকে ইনকামের বিষয়টা মাথায় আনতে হবে। উপরোক্ত তথ্য থেকে আমরা রিলস থেকে কিভাবে এবং কত টাকা ইনকাম করতে পারব সে সম্পর্কে বিস্তারিত জেনেছি। আজকের পোস্ট থেকে আমরা জানলাম ফেসবুক রিলস থেকে ইনকাম করুন এক পলকেই এবং ফেসবুক থেকে টাকা ইনকাম করার সহজ উপায় সম্পর্কে।

সর্বোপরি পোস্টটি যদি ভালো লেগে থাকে তাহলে লাইক দিয়ে পেজের সাথেই থাকবেন। এই ধরনের গুরুত্বপূর্ণ পোস্ট করতে নিয়মিত ওয়েবসাইটটি ভিজিট করুন। যে সকল বন্ধুরা হুদাই ফেসবুকে ঘোরাঘুরি করে তাদের মাঝে পোস্টটি শেয়ার করে ফেসবুক থেকে টাকা ইনকাম করার সহজ উপায় সম্পর্কে তাদের জানার সুযোগ করে দিন, ধন্যবাদ।

এই পোস্টটি পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন

পূর্বের পোস্ট দেখুন পরবর্তী পোস্ট দেখুন
এই পোস্টে এখনো কেউ মন্তব্য করে নি
মন্তব্য করতে এখানে ক্লিক করুন

অর্ডিনারি আইটির নীতিমালা মেনে কমেন্ট করুন। প্রতিটি কমেন্ট রিভিউ করা হয়।

comment url